Header Ads

তুরস্কের আগ্রাসনে সিরিয়াতে রক্তাক্ত শৈশব।

নজরবন্দি ব্যুরো: গত কয়েকদিন ধরেই তুরস্কের বিমানবাহিনী সিরিয়ার সীমান্তবর্তী অঞ্চলে বোমাবর্ষণ করে চলেছে। কুর্দ জঙ্গিদের টার্গেট করে বোমাবর্ষণ করা হলেও শিকার হতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে, বিশেষত শিশুদের। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি সিরিয়ান শিশুর ছবি ভাইরাল হয়ে উঠেছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, শিশুটি একটি প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে কাঁদুকাঁদু মুখে বিষন্নমুখে দাঁড়িয়ে আছে। প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে ওই শিশুটি সারা দুনিয়ার কাছে আবেদন রেখেছে, 'তুরস্কের আগ্রাসনের হাত থেকে তাদের ঘরবাড়ি রক্ষা করার। দেশের ওপর তুর্কি বিমানহানা বন্ধের কাতর আর্জি ঝড়ে পড়েছে।' শিশুটি আবেদন রেখেছে,'তুর্কি সেনাদের গণহত্যা বন্ধের সঙ্গে উদ্বাস্তু হওয়ার যন্ত্রণা থেকে মুক্ত করার জন্য'। সোশ্যাল মিডিয়াতে এই পোস্ট ইতিমধ্যেই ঝড় তুলেছে। আঙ্কারার প্রতি নিন্দা ঝড়ে পড়ছে। তবুও সিরিয়ার ওপর আগ্রাসন থামায় নি তুরস্ক।
 এই আগ্রাসনে ইতিমধ্যেই ৬৫ হাজার মানুষ ঘরছাড়া। তুরস্কের বোমাবর্ষণে সবচেয়ে খারাপ দশা সিরিয়ার রাস আল আইন শহরের। শহরটা প্রায় জনশূন্য হতে চলেছে। এরই মধ্যে তুরস্কের বিমানবাহিনীর বোমাবর্ষণের ফলে কুর্দ স্বশাসিত অঞ্চলে জীবনহানি ঘটেছে বেশ কয়েকজনের। উত্তর সিরিয়াতে তুর্কি সেনার অত্যাচারের শিকার হতে হচ্ছে সকলকে, বাদ পড়ছে না শিশুরাও। তুরস্কের বিমানবাহিনীর হামলায় রক্তাক্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে আক্রান্ত শিশুরা। রক্তে ভিজে যাচ্ছে তাদের শরীর। দুই বাচ্চাকে কোলে তুলে অসহায় পিতা নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে দৌড়ে বেরাচ্ছে এমন ঘটনাও সামনে এসেছে। ইটালি, ভারত সিরিয়ার ওপর তুরস্কের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে, রাষ্ট্রপুঞ্জে তুরস্ক সমালোচিত হচ্ছে। উত্তর সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পরেই তুরস্কের আগ্রাসন থাবা বসিয়েছে। বোমাবর্ষণের কারণে অকালে ঝড়ে পড়ছে প্রাণ। এভাবে আর কতদিন চলবে সাধারণ সিরিয়াবাসীর ওপর তুরকের সেনাদের অভিযান, প্রশ্ন উঠতে শুরু করে দিয়েছে।
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.