Header Ads

বিশেষ ' সানগ্লাস' পড়িয়ে দিলেই দুধের বন্যা বইয়ে দিচ্ছে গরু! অবাক হচ্ছেন তো? সবই প্রযুক্তির কামাল।

নজরবন্দি ব্যুরো : বিশেষ সানগ্লাস পড়িয়ে দিলেই বাড়তি দুধ দিচ্ছে গরু। মজা নয়, প্রলাপ ও নয়। একেবারে খাঁটি বাস্তব। রাশিয়ার মস্কোর চাষীরা এই প্রযুক্তি ব্যবহার করেছেন। পরীক্ষামূলক ভাবে গরুর চোখে পড়ানো হয়েছিল এক বিশেষ ধরনের সানগ্লাস। যা 'ভার্চুয়াল রয়্যালিটি' - র প্রযুক্তি সমৃদ্ধ। এই সানগ্লাস পড়ানোর পর গরু আগের থেকে অনেক বেশি দুধ দিচ্ছে। এমনকি দুধের বন্যাও বলা চলে। এই ঘটনায় অবাক পশু চিকিৎসক থেকে শুরু করে পশু গবেষক সকলেই। মস্কোর চাষিরা বলেছেন তারা যেই প্রযুক্তি ব্যবহার করেছেন তার নাম মডিফায়েড ডি আর হেডসেট। এই চশমা গরুকে পড়ানো হলে গরুর মুড নাকি সবসময়ই ফুরফুরে থাকে।
কারণ চশমার দৌলতে গরুর চোখের সামনে ভেসে ওঠে সবুজ ঘাস, একের পর এক সুন্দর মাঠের ছবি। যা দেখলে গরুর মন আনন্দে ভোরে ওঠে। আর মন ভালো থাকলে বেশি পরিমাণে দুধ দিচ্ছে গরু। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, 'গরুর কথা মাথায় রেখেই এই বিশেষ ধরণের চশমা তৈরি করা হয়েছে। এমনকি, এই চশমার অন্যতম বৈশিষ্ট্য এটা যে, গরুর দৃষ্টি ক্ষমতা অনুযায়ী এতে স্ক্রিন কালার এবং উজ্জ্বল্য প্রয়োজন মত বাড়ানো কমানো সম্ভব। আর এই সবকিছুই নাকি কি ভি আর সানগ্লাসকে অল্প দিনেই হিট করে দিয়েছে। 'কিন্তু এই ঘটনা বৈজ্ঞানিক ভাবে আদৌ কি সম্ভব?
বিশেষজ্ঞরা বলেন বিষয়টি জটিলভাবে নয় বরং সহজভাবে দেখা যেতে পারে। তাঁদের মতে, গরু খুশি থাকলে তাঁর দুধ দেওয়ার ক্ষমতা অনেকটাই বৃদ্ধি পায়। এক্ষেত্রে সেটাই ঘটেছে। কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে এই চশমার জন্য গরুর উপর কোনো খারাপ প্রভাব পড়েছে কিনা? কারণ এই ধরনের চশমায় প্রচুর পরিমাণে পাওয়ার থাকে, সে ক্ষেত্রে গরুর উপর এর কোনো ক্ষতিকারক প্রভাব পড়েছে না তো? এসব নিয়ে পর্যালোচনা করেছেন গবেষকরা।
Loading...

No comments

Theme images by enjoynz. Powered by Blogger.