Header Ads

বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া পালাতে গিয়ে নৌকাডুবিতে মৃত্যু ১৫ রোহিঙ্গার, নিখোঁজ ৪০

নজরবন্দি ব্যুরো: বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া পালিয়ে যাচ্ছিলেন বেশকিছু রোহিঙ্গা। গোপনে পালাতে গিয়ে বঙ্গোপসাগরে ঘটে নৌকা ডুবি। এই নৌকা ডুবির ফলে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ১৫ জন এছাড়াও প্রায় ৬৫ জনকে উদ্ধার করেছে বাংলাদেশের কোস্টগার্ড। ভয়াবহ ট্রলারডুবিটি ঘটে বাংলাদেশের উপকূল এলাকার সেন্ট মার্টিন আইল্যান্ডের কাছে। স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে খবর এদিন রাতে একটি নৌকাতে প্রায় দেড়শ রোহিঙ্গা যাত্রী মালয়েশিয়া পালিয়ে যাচ্ছিলেন। পালিয়ে যাওয়ার পথে নৌকাটি জলের তলায় থাকা পাথরে ধাক্কা খায়। ধাক্কা খাওয়ার পরই নৌকাটিতে জল ঢুকতে শুরু করে। নিমেষের মধ্যেই নৌকাটি জলে ডুবে যায়। ঘটনাটি যখন ঘটে ঘটনাস্থলের কাছাকাছি তখন গার্ড দিচ্ছিল বাংলাদেশের উপকূল রক্ষী বাহিনী। কোস্টগার্ডের আধিকারিকরা ওই নৌকাটি নদীতে ডুবে যেতে দেখে তৎক্ষণাৎ তাদের বোর্ড নিয়ে হাজির হন এরপর যুদ্ধকালীন তৎপরতায় শুরু হয়ে যায় উদ্ধারকাজ। ৬৫ জন যাত্রীকে ইতিমধ্যেই উদ্ধার করা হয় এছাড়াও ১৫ জনের মৃতদেহ নদী থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো নিখোঁজ ৪০ জন।
বাংলাদেশ সরকারের তিনটি বিশেষ টিম একযোগে নেমে পড়েছে উদ্ধারকাজে। ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে উদ্ধারকাজ শুরু করে দিয়েছে বাংলাদেশের জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা ব্যবস্থাপনার বিশেষ দলও। ডুবে যাওয়া নৌকাটিতে থাকা ১২০ জনই রোহিঙ্গা ছিলেন বলে প্রশাসন সূত্রে জানানো হয়েছে। প্রাণে বেঁচে যাওয়া রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন একটি দালালের মারফত তারা বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে পালিয়ে মালয়েশিয়া গিয়ে আশ্রয় নেওয়ার চেষ্টা করছিলেন। ওই রোহিঙ্গারা যেহেতু উপকূল ধরেই পালানোর চেষ্টা করছিল তাই সেখানে উপকূল রক্ষী বাহিনীর ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন দেশের সাধারন নাগরিকদের একাংশ। এই ঘটনার পর থেকেই রীতিমতো আতঙ্কিত বাংলাদেশের রোহিঙ্গা কলোনির লোকজন। নৌকাডুবির ঘটনার কথা ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে ও নৌকাডুবির মোকাবিলায় ও নিখোঁজদের উদ্ধারের জন্য বিশেষ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। ঘটনাকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.