Header Ads

আমারা এই ভাইরাস তৈরি করিনি, আন্তর্জাতিক চাপের মুখে জানালো চিনা মুখপাত্র

নজরবন্দি ব্যুরোঃ করোনা ভাইরাসের দাপট সবার প্রথমে দেখা যায় চিনের ইউহান প্রদেশে। সেখান থেকেই আস্তে আস্তে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে মারক ভাইরাসটি। আপাতত চিনে এর সংক্রমণ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে এলেও বিশ্বের অন্যান্য দেশে প্রভাব মারাত্মক। ইতিমধ্যেই করোনার জেরে পৃথিবীতে প্রায় ১৮ হাজারেরও বেশি মানুষের প্রাণ গিয়েছে। আক্রান্ত প্রায় ৪ লক্ষ কুড়ি হাজার। মুশকিল হল, ভাইরাসটির উত্পজত্তি এবং চরিত্র সম্পর্কে বিজ্ঞানীদের কাছে তেমন কোনও তথ্য নেই। বিজ্ঞানীদের একটা অংশ দাবি করেন, এটি কোনও প্রাকৃতিক সংক্রমণ নয়, বরং মনুষ্য সৃষ্ট। জৈবিক অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করার জন্য চিনই ভাইরাসটি তৈরি করেছে। আমেরিকা তো সরাসরি এই ভাইরাস নিয়ে চিনকেই অভিযুক্ত ঠাউরেছে। \ এবার ঠিক এই পরিস্থিতিতে বিবৃতি দিল চিন। বুধবার ভারতে চিনা দূতাবাসের মুখপাত্র এর তরফে একটি বিবৃতি দিয়ে জানানো হল, চিন এই ভাইরাস তৈরি করেনি বা বিশ্বে ছড়ায় নি। চিনের মুখপাত্র জি রং জানিয়েছেন, চিনা মানুষদের সমালোচনা না করে চিন কীভাবে এই ভাইরাসের মোকাবিলা করেছে, তার দিকে বিশ্বের অন্য দেশের নজর দেওয়া উচিত্। অপরদিকে আমেরিকার নাম না করে জি রং-এর দাবি, যারা করোনাভাইরাসের নাম নিয়ে চিনকে কলঙ্কিত করতে চাইছেন, তাঁরা ভুলে যাচ্ছেন যে, মানবজাতির কল্যাণে চিন প্রচুর ত্যাগ স্বীকার করেছে।
অন্যদিকে 'হু' এর টুইট ঘিরে জোর জল্পনাও ছড়িয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু এর একটি টুইটে দেখা যাচ্ছে, চিন 'হু' কে জানুয়ারি মাসে যে তথ্য দিয়েছিল, সেই অনুযায়ী এই মারণ ভাইরাস মানুষের থেকে মানুষের দেহে ছড়ায় না। পাশাপাশি বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা, হু'র পক্ষে এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ডাক্তার মাইক রায়ান আমেরিকার প্রেসিডেন্ট কে সতর্ক করে জানিয়েছিলেন 'চীনা ভাইরাস' এই ধরনের অনভিপ্রেত মন্তব্য না করতে। কারন ভাইরাসের কোন সীমারেখা নেই, ভাইরাস জাত ধর্ম শক্তি বা অর্থবল দেখেনা।
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.