Header Ads

করোনার আবহে বড় ঘোষণা, নিজের সর্বস্তরের কর্মীদের দায়িত্ব নিল টাটা গোষ্ঠী!

নজরবন্দি ব্যুরোঃ করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়ছে পৃথিবী, মানব সভ্যতা। আসলে বাঁচার লড়াই, বাঁচানোর লড়াই। কিন্তু করোনার বিস্তার রুখতে প্রাথমিক পন্থা হিসেবে বিভিন্ন দেশ কমবেশি চীনের দেখানো পন্থাকেই অনুসরণ করছে। আর এই পদ্ধতির নাম লকডাউন! অর্থাৎ নিজের বাড়ির বাইরে না বেরনো। ভারত তথা পশ্চিমবঙ্গও অনুসরণ করছে এই পন্থা, শুরু হয়েছে লক ডাউন।
এই অবস্থায় যে প্রশ্ন সবথেকে বেশি করে সামনে আসছে তা হল করোনা আতঙ্ক কেটে যাওয়ার পর দেশজুড়ে কর্মহীন হবেন কত মানুষ? রাজ্যেই বা কত! আর এই প্রশ্ন কিন্তু অমূলক নয় কারন সরকারি চাকুরি যত মানুষ করেন তাঁর থেকে অনেক বেশি মানুষ কাজ করেন প্রাইভেট ফার্মে। তাছাড়া শ্রমিক, কৃষক, অস্থায়ী মজদুর তো রয়েইছেন। এই অবস্থায় টাটা গোষ্ঠীর ঘোষনা সত্যিই বেশ প্রশংসনীয়। 
এদিন টাটা-র পক্ষে ঘোষণা করা হয়, তাঁরা তাঁদের সর্বস্তরের কর্মীদের পাশে আছেন। টাটা সন্সের চেয়ারম্যান এন চন্দ্রশেখর ঘোষণা করেছেন, যারা মার্চ, এপ্রিল মাস কাজে আসতে পারবেন না তাদের পুরো বেতন দেওয়া হবে। বিশেষ করে যারা অস্থায়ী কর্মী, তাদের দেওয়া হবে প্রতিদিনের বেতন।
উল্লেখ্য, টাটা তাঁদের সব কর্মীদের ওয়ার্ক ফর্ম হোম করার নির্দেশ দিয়েছে পাশাপাশি টাটা গোষ্ঠীর সাথে যুক্ত সমস্ত সংস্হাকে এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যারা দিনমজুর, অস্থায়ী কর্মী তাদের কথা মাথায় রেখে চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন, "কোনোভাবেই তাদের কথা ভুললে চলবে না। এই কোয়ারেন্টাইন অবস্হায় তাদের পাশে দাঁড়াতে হবে। তাই তাদের আগামী মাস পর্যন্ত পুরো বেতন দেওয়ার ব্যবস্হা করা হবে।" 
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.